Monday , March 1 2021

২২ বছরের মধ্যে বিয়ে না হলে যেসব স’মস্যায় পরতে হয় মেয়েদের!

একটি মেয়ের জীবনের মূল লক্ষ্যই হল বিয়ে৷ এই ধারণাটাই আজও মানুষের মনে কুসংস্কারের মতো গেঁথে আছে। কথায় বলে নাকি মেয়েরা কুড়িতেই বুড়ি। নারী আর পুরুষের সমান অধিকার আছে, এই নিয়ে ত’র্ক-বিত’র্ক লে’গেই রয়েছে , কিন্তু সমাজে’র তো অনেক কিছুই বদলেছে কিন্তু কিছু প্রচলতি ধ্যান ধারণা আজও রয়ে গিয়েছে –

আর এই কথাটি আমা’র বলার একমাত্র কারণ হলো, দেখা যায় এখন ২২ বছর বয়স হলেই মেয়েদের বিয়ে করিয়ে দেয়ার জন্য নানান দিক থেকে তাঁদের উপর চা’প আসতে থাকে।

কোনও মেয়ের বয়স একটু বাড়লেই তাঁর নিজে’র পরিবার, আত্মীয়, ব’ন্ধু-বান্ধব, এমনকি পাড়া প্রতিবেশীরাও তাঁর বিয়ের ব্যাপারে এত ধ’রনের প্রশ্ন করে যা অনেক সময় অবিবাহিতা মেয়েদের কাছে অস্ব’স্তি র কারণ হয়ে দাঁড়ায়। আসুন এক ঝলকে আম’রা দেখে নিই যে, ২২ বছর বয়স পেরিয়ে গেলে অবিবাহিত মহিলাদের কি কি স’মস্যার স’ম্মুখীন হতে হয় :-

১ম, বাড়ির ভি’তরেই সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরেই রোজ রোজ মেয়ের বিয়ে না দিতে পারার জন্য বাবা-মাকে হা হুতাশ ক’রতে শোনা যায়। অনেক সময় নিজে’র বাবা-মাকে এরকম চিন্তা ক’রতে দেখে মেয়েরা নিজে’রা নিজেদেরকেই অপরাধী বলে মনে করে৷

২য়, যদি কখনও কোনও মেয়ে তাঁর কাজে’র সূত্রে বাইরে যায় তাহলে, চার পাশে লোকজনের বিয়ে হয়, তখনই আইবুড়ো মেয়েদের শুনতে হয় কেন এখনও তার বিয়ে হল না? যা মেয়েদের কাছে সত্যিই মা’রাত্মক অস্ব’স্তি র কারণ৷