Thursday , March 4 2021

লেবাননে ক*রো*নায় বাংলাদেশি নারীর মৃ*ত্যু

লেবাননে করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাবিয়া বেগম নামে এক বাংলাদেশি নারী কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুর দুইটায় বৈরুতের রফিক হারিরি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। বর্তমানে মরদেহ হিমঘরে আছে।

রাবিয়া বেগমের মেয়ে লেবানন প্রবাসী তানজিনা আক্তার জানান, তার মা ছয় বছর আগে গৃহকর্মীর ভিসায় লেবাননে আসেন। দুই সপ্তাহ আগে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি হলে সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়। পরে অবস্থার আরও অবনতি হলে তার মেয়ে শুক্রবার

সকালে তাকে রফিক হারিরি হাসপাতালে নিয়ে এসে ভর্তি করার কয়েক ঘণ্টা পরেই রাবিয়া বেগমের মৃত্যু হয়। রাবিয়া বেগমের বাড়ি বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ উপজেলার সাতপুকুরিয়া গ্রামে। বাবার নাম হারুনুর রশীদ।লেবাননে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে নয় বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন=কুয়েতে বাংলাদেশ বিমানের কান্ট্রি ম্যানেজার মোহাম্মদ হাফিজুল ইসলাম বদলি উপলক্ষে সংবাদকর্মীদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। সোমবার (১৮ জানুয়ারি) রাত ৮টায় কুয়েতের সিটি টাওয়ার হোটেলে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এ সময় কুয়েতে বাংলাদেশের বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

২০১৭ সালের ২৯ নভেম্বর কান্ট্রি ম্যানেজার হিসেবে যোগদান করেন তিনি। এর আগে তিনি ঢাকা ও সিলেট আন্তর্জাতিক বন্দরে দায়িত্ব পালন করেন। বুধবার (২০ জানুয়ারি) সকালে দেশের উদ্দেশ্যে কুয়েত ত্যাগ করবেন। বর্তমানে ঢাকায় বদলি হয়েছেন মোহাম্মদ হাফিজুল ইসলাম। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, কুয়েতে তিন বছর কর্মজীবনে আপনাদের কাছ থেকে অনেক সহযোগিতা ও ভালোবাসা পেয়েছি। কাজ করতে গিয়ে প্রবাসীদের অনেক সময় অনেক অভিযোগ আবদার ছিল। আমি চেষ্টা করেছি সাধ্যের মধ্যে প্রবাসীদের সমস্যার সমাধান করতে এবং বিমানের পক্ষ হতে যাত্রীদের সর্বোচ্চ সেবা দেয়ার।

বর্তমানে যাত্রীদের সুবির্ধাথে উন্নত প্রযুক্তি সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন বিমানে রয়েছে। বিমান বাংলাদেশের বিমান আপনাদের। প্রবাসীদের কষ্টে অর্জিত অর্থ দেশের উন্নয়ন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সে অর্থ যাতে অন্য দেশে চলে না যায় সেজন্য বিমানে যাতায়াত করবেন প্রবাসীরা।