Wednesday , April 21 2021

সৌরভ হাসপাতাল ছাড়ছেন বুধবার

অনেকটা সুস্থ হয়ে উঠেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। তার বুকে যন্ত্রণা বা অস্বস্তির ভাব এখন নেই। আগামীকাল বুধবার হাসপাতাল থেকে ছুটি মিলতে পারে তার। তবে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার চার দিন পর ছুটি পেলেও আবারও ফিরতে হবে। হৃদরোগের চিকিৎসার দ্বিতীয় পর্ব সম্পন্ন করার জন্য কয়েক দিনের মধ্যেই আবার হাসপাতালে ফিরতে হবে ভারতের সাবেক ক্রিকেট অধিনায়ককে।

জানা গেছে, সৌরভের ডান দিকের ধমনীতে একটি স্টেন্ট বসানো হয়েছে। কিন্তু তার বাঁ দিকের ধমনীতেও দুটি ব্লকেজ রয়েছে। কোনো রকম ঝুঁকি না নিয়ে আরও দুটি স্টেন্ট বসানো হবে।

সৌরভের জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ সরোজ মণ্ডল বলেন, ‘দেশ ও বিদেশের হৃদরোগ চিকিৎসকদের সঙ্গে আলোচনা করে যৌথভাবে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, সৌরভের অন্য দুটি ধমনীতে এনজিওপ্লাস্টিই করতে হবে, বাইপাস নয়। তবে সেটা কবে করা হবে, এখনই তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।’

ভারতের সাবেক অধিনায়ক ও ক্রিকেট বোর্ডের বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলিকে সম্পূর্ণ ফিট ঘোষণা দিয়েছেন হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবী শেঠি। সৌরভকে দেখার জন্য মঙ্গলবার তিনি ব্যঙ্গালুরু থেকে চার্টার্ড ফ্লাইটে কলকাতা উড়ে আসেন।

সৌরভকে দেখার পর ভারতীয় গণমাধ্যমে দেবী শেঠি বলেন, ‘সৌরভ একেবারে ফিট। স্বাভাবিক জীবনযাপন তো বটেই, কিছুদিন পর ম্যারাথনও দৌড়াতে পারবেন। চাইলে ক্রিকেটও খেলতে পারবেন। বিমানও চালাতে পারবেন। কোনও সমস্যা হবে না।’

দেবী শেঠিসহ ১০ জন চিকিৎসককে নিয়ে একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয় সৌরভের চিকিৎসার জন্য। দফায়-দফায় বৈঠক চলে বিদেশি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গেও। হাসপাতালে গিয়ে দেবী শেঠি প্রথমে দেখা করেন সৌরভের সঙ্গে। এরপর মেডিকেল বোর্ডের সঙ্গে মিটিং শেষে মুখোমুখি হন গণমাধ্যমের।

সৌরভের হৃদযন্ত্রে কোনো সমস্যা নেই জানিয়ে দেবী শেঠি বলেন, ‘হার্ট অ্যাটাক হলেও সৌরভের হৃদযন্ত্রে কোনও সমস্যা নেই। শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়ায় কোনো সমস্যা হবে না। একেবারে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারবেন।’

এদিকে সৌরভকে দেখার জন্য ভিড় উপচে পড়ছে আলিপুরের হাসপাতালে। চিকিৎসক সৌতিক পান্ডা বলেন, ‘সৌরভ নিজেই দর্শনার্থী (ভিজিটর) নিয়ন্ত্রণ করতে অনুরোধ করেছিলেন। উনিই ঠিক করে দিচ্ছেন, কাদের সঙ্গে দেখা করবেন।’