Thursday , March 4 2021

বাবরের অনুপস্থিতি দলের জন্য বড় ধাক্কাঃ

দুর্ভাগ্য যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছেনা নিউজল্যান্ড সফররত পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে। করোনার ধাক্কা সামলে উঠে পুরো দল অবশেষে অনুশীলনের অনুমতি পেয়েছিলো। কিন্তু এটিই যেন আবারো কাল হয়ে দাঁড়ালো দলটির জন্য। হাতে আঘাত পেয়ে ১২ দিনের জন্য ছিটকে গেছেন দলটির অধিনায়ক বাবর আজম।

তার অনুপস্থিতিকে দলের জন্য বড় একটি ধাক্কা বলে ব্যাখ্যা করছেন দলের বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনুস।দলীয় অনুশীলনের সময় ডান হাতের বুড়ো আঙুলে আঘাত পেয়েছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। ডান হাতের বৃদ্ধাংগুলে একটি চিড় ধরা পড়েছে বলে জানা গেছে।

চোট থেকে সেরে উঠতে আপাতত ১২ দিন তাকে বাইরে থাকতে হবে। এর মধ্যেই সমাপ্ত হয়ে যাবে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। দলে বাবরের মত খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতিতে নিজেরা অস্বস্তিতে থাকলেও বিপক্ষ দল কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবে বলে মত ওয়াকারের।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সিরিজের শুরুর আগে, দুর্ভাগ্যজনকভাবে ভুল সময়ে তাঁর এটি (ইনজুরি) হয়েছে। বর্তমানে সব ফরম্যাটেই বাবর বিশ্বের অন্যতম সেরা একজন ব্যাটসম্যান। তাই আমাদের জন্য এটি বড় একটি ধাক্কা। অন্য দলগুলো তাঁকে দেখে ভয় পায়।’

সিরিজ শুরুর আগেই দলীয় অধিনায়ককে হারালেও সেখান থেকেই ইতিবাচক দিক খুঁজছেন ওয়াকার। তাঁর মতে বাবরের না থাকায় তাঁর শূন্যস্থান পূরণে যে একাদশে থাকবে সে নিজেকে প্রমাণের সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন। একই সঙ্গে ব্যাটিং অর্ডারে অদল-বদল করে পরীক্ষা-নিরীক্ষাও চালাতে পারবেন তাঁরা।

ক্রাইস্টচার্চে দলের লম্বা কোয়ারেন্টাইন পাকিস্তান দলের প্রস্তুতিতে কিছুটা প্রভাব ফেলেছে। কিন্তু দলের বোলিং কোচ জানান তাঁর দলের খেলোয়াড়রা ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ক্রিকেটে ফিরতে শুরু করেছে।

‘আমি জানি কোভিড-১৯ এর কারণে পরিস্থিতি আমাদের জন্য স্বাভাবিক না। সফররত দল গুলো সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। কিন্তু আমাদের এর সঙ্গেই মানিয়ে নিতে হবে। একই সঙ্গে খেলোয়াড়দের মধ্যে থেকে তাদের সেরাটা বের করে আনাও আমাদের দায়িত্ব,’ ওয়াকার যোগ করেন।